সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
নোবিপ্রবি ছায়া জাতিসংঘের ২য় সম্মেলন ৫ এপ্রিল থেকে!

নোবিপ্রবি ছায়া জাতিসংঘের ২য় সম্মেলন ৫ এপ্রিল থেকে!

নোবিপ্রবি ছায়া জাতিসংঘ সংস্থার অধীনে অনুষ্ঠিতব্য চারদিনব্যাপী নোবিপ্রবি ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৮ আগামী ২৯ মার্চ থেকে ১ এপ্রিলের পরিবর্তে ৫ এপ্রিল থেকে ৮ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

সমগ্র দেশ থেকে আগত প্রতিনিধিদের কোলাহলে মুখরিত হতে যাচ্ছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ। গত বছর এ প্রাঙ্গণে আয়োজিত ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলনটি উক্ত সংগঠন কতৃক আয়োজিত প্রথম সম্মেলন ছিল এবং তা সকল মহলে সমাদৃত এবং প্রশংসিত হয়েছিল। এবারও বিপুল সংখ্যক অংশগ্রহণকারীর স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহন ও পূর্ণাঙ্গ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ফলপ্রসু একটি সম্মেলন আশা করা যাচ্ছে। আয়োজকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রশাসনিক জটিলতার কারণে সময় পেছালেও তা কোন বিরূপ প্রভাব ফেলবে না। অংশগ্রহণকারী প্রতিনিধিদের স্বাগত জানাতে এবার ব্যাপকভাবে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। সুপরিকল্পিত ও সুসংগঠিত আয়োজনের লক্ষ্যে চলছে নিরলস প্রস্তুতি।

ছায়াজাতিসংঘ এমন একটি সহশিক্ষা কার্যক্রম যাতে শিক্ষার্থীরা জাতিসংঘ ও জাতিসংঘের আদলে সাজানো কমিটি গুলোতে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধি হিসেবে অংশগ্রহন করে।শিক্ষার্থীরা এর মাধ্যমে কূটনীতি, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও জাতিসংঘ সম্বন্ধে সম্যক ধারনা অর্জন করতে পারে। বিভিন্ন স্কুল,কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় ছায়া জাতিসংঘের এ সম্মেলনসমূহের আয়োজন করে থাকে। এ সম্মেলনসমূহে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যেকোন বিষয়ে সবিস্তারে গবেষণা, সুস্পষ্টতা ও আত্মবিশ্বাসের সাথে বাচন চর্চা, সুস্থ বিতর্কচর্চা এবং সুচিন্তিত লেখনশৈলীতে দক্ষতা অর্জন করে যা তাদের সৃজনশীলতা, দলগতভাবে কাজ করার দক্ষতা ও নেতৃত্বদানের গুনাবলীকে বিকশিত করে।

এ প্রসঙ্গে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এন্ড মেরিন সাইন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এবং নোবিপ্রবি ছায়া জাতিসংঘ সংস্থার উপদেষ্টা জনাব মাহাবুবুর রহমান বলেন,”এটি নিঃসন্দেহে একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি কূটনৈতিক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে জ্ঞানচর্চার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের জন্য এ কার্যক্রম তাদের ভবিষ্যৎ জীবনের পাথেয় হয়ে থাকবে। ব্যক্তিগতভাবে আমার পক্ষ থেকে পূর্ন সমর্থন থাকছে।আমি এর উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি ও সাফল্য কামনা করছি।”

সাজ্জাদ যোবায়ের
নোবিপ্রবি প্রতিনিধি।

শেয়ার করুন