সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
সাম্প্রতিক ছাত্ররাজনীতি!

সাম্প্রতিক ছাত্ররাজনীতি!

ছবি: আসাদুজ্জামান আরমান। সভাপতি, নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগ

লেখক: আসাদুজ্জামান আরমান

সভাপতি, নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগ

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) পড়ালেখা করা বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রদের স্বপ্ন। ভর্তি পরীক্ষার ফরম কিনার যোগ্যতা যেখানে অনেকে অর্জন করতে পারেনা সেখানে বুয়েটে ভর্তি হওয়া যেমন একজন ছাত্রের জন্য সৌভাগ্যের তেমনি তার পরিবারের জন্য গৌরবের এবং স্বস্তির। আমরা সাধারণরা বিশ্বাস করি আল্লাহ মনে হয় তাদেরকে অন্যরকম বিশেষভাবে তৈরি মেধা দিয়ে এই দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন। আমাদের ভক্তি সম্মান তাদের প্রতি তেমন।

সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডে আমরা বিস্মিত! আমাদের হৃদয়ে রক্ত ক্ষরন হচ্ছে। কারন জড়িতরাও বুয়েটের ছাত্র। এই মেধাবী ছাত্ররা খুনের মত জঘন্য পাপে জড়িয়ে গেল, এই বিকৃত মানসিকতা তাদের কিভাবে তৈরি হল? আপনি যদি ছাত্ররাজনীতিকে দায়ী করেন তাহলে আমি আপনার পক্ষে থাকতে পারলাম না। কারন বুয়েটের শিক্ষার্থীরা মাধ্যমিক কিংবা উচ্চ মাধ্যমিকে ছাত্ররাজনীতিতে জড়িত ছিল আমি বিশ্বাস করিনা। তখন তারা পড়লেখা নিয়েই বেশি ব্যাস্ত থাকার কথা।

বুয়েটে ভর্তির পরে রাজনীতি শুরু করলে তারাতো (খুনিরা) বেশিরভাগই দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। সেই হিসেবে তাদের রাজনীতির বয়স এক থেকে দুই বছর। এই স্বল্প সময়ে তাদের পাপকর্ম বলে দেয়, তারা ছাত্রলীগের রাজনীতি ধারন করতে পারেনি, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রও তাদের জানা নেই। তারা ছাত্রলীগের নীতি আদর্শ ধারন করতে পারেনি। তারা ছাত্রলীগের কর্মি হতে পারেনা।

তাদের (খুনিদের)এই বিকৃত মানসিকতার জন্য তারা যে আদর্শ দ্বারা প্রভাবিত তাহলো তাদের পরিবার। কারন তারা তাদের পরিবারের সাথেই ছিল সারাটি জীবন। তাদের পরিবারের আদর্শই তাদের আদর্শ। তাদের পিতা-মাতার পরিচয়ই তাদের পরিচয়। কোন সংগঠনের পরিচয় তাদের থাকতে পারেনা। তাই তাদের পরিচয়টা তাদের বাবা-মায়ের নামে দিন, কোন সংগঠনের নামে নয়। প্রয়োজনে তাদের পিতামাতার রাজনৈতিক পরিচয় দিন। না আপনারা তা দিবেন না কারন তাহলে…….. আপনাদের গায়ে আসবে।

ইসলাম শান্তির ধর্ম। আমাদের সেই ধর্ম কে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য ইসলামের শত্রুদের চক্রান্তে মুসলমান সেজে যেমন জঙ্গিরা ইসলাম বিরোধী কাজ করে ইসলামের ক্ষতি করছে। তেমনি ছাত্রলীগকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য ছাত্রলীগের বিরোধীরা ছাত্রলীগ সেজে ছাত্রলীগের ক্ষতি করছে। ফেসবুকে লেখা work at ছাত্রলীগের কর্মি। কিন্তু লেখালেখি ছাত্রলীগের বিপক্ষে এদেরকে চিহ্নিত করতে হবে। ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্ত্ব, সাধারন শিক্ষার্থী, সংবাদ কর্মী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ করছি, অন্য দলের কিংবা মতাদর্শের কোন শিক্ষার্থী ছাত্রলীগের প্লাটফর্ম ব্যাবহার করে অপকর্ম-সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালালে তা চিহ্নিত করে ব্যাবস্থা গ্রহন করার উদ্দ্যোগ নিন।

 

এটি লেখকের কোন সাংগঠনিক বক্তব্য নয়, একান্তই ব্যাক্তিগত মতামত।

শেয়ার করুন