সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
এই সময়ের গান গুলোও কালজয়ী হয়ে সবার মনে জায়গা করে নিবে বলে আমি মনে করি – চিত্রা

এই সময়ের গান গুলোও কালজয়ী হয়ে সবার মনে জায়গা করে নিবে বলে আমি মনে করি – চিত্রা

বাংলা সংগীত জগতের একজন প্রতিভাবান শিল্পী চিত্রা। নিজের মৌলিক গান সহ কভার গান গুলো ও শ্রোতাদের মনে জায়গা করে নিয়েছে। ভালো কথার সুরের গান তিনি পছন্দ করেন।
সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন এম.এ. আলম শুভ।

১।কেমন আছেন??
চিত্রা : আলহামদুলিল্লাহ্‌ খুব ভালো আছি।

২।বর্তমান সময়ে আপনি কি নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
চিত্রা : আসলে আমার ব্যস্ততা কিছুটা আছে, পড়াশোনা দিক দিয়ে ব্যস্ততা, সবে মাত্র অনার্স পাশ করলাম। এখন এম বি এ ভর্তি নিয়ে ব্যস্ততায় আছি। পার্সোনাল লাইফে সব সময় কাজের মধ্যে দিয়ে ব্যস্ত থাকতে পছন্দ করি। আর সংগীত জগতে নিজের একটা ভালো জায়গা করে নেওয়ায় ব্যস্ত আছি। মানে কিছু গান নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছি সাথে ফটোশ্যুট নিয়েও বিজি আছি।নিয়মিত টিভি শো, স্টেজ প্রোগ্রাম নিয়েও ব্যস্ত আছি । নিজের গাওয়া মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় সেই সাথে সামনে কিছু ভালো মানের মিউজিক ভিডিও আসবে সেগুলো নিয়েও ব্যস্ত সময় পার করছি।

৩।প্রথম কোন গান দিয়ে শিল্পী হিসেবে পরিচিত লাভ করেন?
চিত্রা : প্রথম যে গান টি নিয়ে আমি শিল্পী হিসেবে পরিচিতি লাভ করি তা হলো আমার গাওয়া প্রথম মৌলিক গান “স্মৃতির জানালায়”। গানটি সেমি ক্লাসিক্যাল , গানটির কথা, সুর ও সংগীত করেছেন বর্ণ চক্রবর্তী। এই গানটি দ্বারা আমি খুবই প্রশংসিত হয়েছি।

৪।এই পর্যন্ত কতটি গান করেছেন? 
চিত্রা : এই পর্যন্ত আমি ১৬ টি গান করেছি।সামনে আরো বেশ কিছু গানের রেকোর্ডিং চলছে তারমধ্যে একটি আইটেম গান করা হচ্ছে কলকাতার কণ্ঠশিল্পী আকাশ সেন এর সাথে, মিউজিক করেছেন রবিন ইসলাম। এছাড়া শান এর সুর ও সংগীতে আসছে আমার আর তৌসিফ এর গাওয়া ডুয়েট গান। ভিডিও ডিরেকশনে থাকছেন শুভব্রত সরকার।

৫।কোন ধরনের গান গুলো করতে বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন?
চিত্রা :আমি ক্লাসিক্যাল, সেমি ক্লাসিক্যাল, মেলোডিয়াস, হালকা মিষ্টি সুরে গান গুলো গাইতে বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তবে এগুলোর মধ্যে রবীন্দ্র সংগীত ও করা হয়।

৬।বর্তমানে একজন শিল্পীর জনপ্রিয় তুলনা করা হয় ভিউ মাধ্যমে,এই সম্পর্কে আপনার মতামত কি?
চিত্রা : আপনারা সবাই জানেন এখন আর আগের মতো সিডি ক্যাসেটের যুগ নেই বললেই চলে। ভিউ এর মধ্যে দিয়ে একজন শিল্পীর জনপ্রিয়তা বাড়বে তবে একথাও সত্য যে দুধরনের গান বেশি ভিউ হয়। একটা হচ্ছে গানটির পছন্দের পরিমান বেশি হলে আরেকটা হলো গানটি অপছন্দের পরিমান বেশি হলে। তাহলে বিষয়টা দাড়াই এটাই যে তার গান শ্রোতাবন্ধুরা কোন সেন্সে জনপ্রিয়তা করে তুলেছে। তাদের ভালো লাগা থেকে নাকি তাদের অপছন্দের থেকে।

৭।গানের জগতে আপনি কাদের আইডল হিসেবে মানেন?
চিত্রা : আমার গানের আইডল হিসেবে মানি দেশীয়দের মধ্যে শাহনাজ রাহমাতুল্লাহ, ও রুনা লায়লা। আর ওপার বাংলার মধ্যে লতা মঙ্গেশকর, পাকিস্তান থেকে নূর জাহান বেগম, গোলাম আলি, ও মেহেদী হাসান।

৮।বর্তমান সময়ের কি গানের কোনো পরিবর্তন এসেছে?
চিত্রা : অবশ্যই পরিবর্তন এসেছে বলে আমি মনে করি এবং খুব ভালো পরিবর্তন হচ্ছে উন্নত মানের গানের কথা, সুর   ও অসাধারন সব মিউজিক কম্পোজিশন দিয়ে গান গুলো আসছে। সুর, কথা ও মিউজিক যুগের সাথে তাল মিলিয়ে পরিবর্তন হয়েছে। আগের গান গুলো যেমন তখনকার উপযোগি ও কালজয়ী হিসেবে আমাদের মনে জায়গা করে রেখেছে, এই সময়ের গান গুলোতেও তেমন ভিন্নতা পাওয়া যায়। আশা করি এই সময়ের গান গুলোও আমাদের মাঝে কালজয়ী হয়ে আমাদের মনে জায়গা করে নিবে।

৯।বেশিরভাগ শিল্পী গানের অডিও চেয়েও ভিডিওতে বেশি মনোযোগী, এই নিয়ে আপনার মন্তব্য কি?
চিত্রা : এটা আমি বলবো যুগের পরিবর্তন মাত্র, এতে খারাপ কিছু আমার মতে নেই। আগে হইতো এমন সুযোগ বা প্রচলন ছিলো না তাই শুধু অডিও হিট। আর এখন অডিও এর সাথে আমরা সিনেমাটোগ্রাফি পাই হইতো তাই এটার প্রতি সবার মনোযোগ বেশি। তবে মানুষ ভিজুয়াল এর প্রতি আকর্ষিত হবে এটা যেমন স্বাভাবিক তেমনি অডিও ভালো না হলে তাহলে কখনো একটা ভালো ভিজুয়াল মেইক করা সম্ভব না এই কথাও সত্য।

১০।আপনার গাওয়া কিছু জনপ্রিয় গানের নাম বলুন যে গান গুলো শ্রোতারা খুব ভালো ভাব গ্রহন করেছে।
চিত্রা : স্টেজ প্রোগ্রামে দি রেইন ফ্লিমের গান চন্দলা হাওরে (রুনা লায়লা) । এই বৃষ্টি  ভেজা রাতে (রুনা লায়লা), আর কতো ভালোবাসলে তোরে (চিত্রা) , আগে যদি জানিতাম (লাকী আখন্দ) , বিমুদ্র এই রাত্রী আমার (আবিদা সুলতানা) । তখন তোমার একুশ বছর বোধই (আরতি মুখার্জি)

১১।ঈদে আপনার শ্রোতাদের জন্য কোন গান কি উপহার দিচ্ছেন??
চিত্রা : বেশ কিছু গান নিয়ে দর্শক শ্রোতাদের সামনে আসছি, কিছু গান ঈদের পর ও আসবে।

১২। বিয়ে নিয়ে কিছু কি ভেবেছেন?
চিত্রা : আমি বিয়ে করবো না ভাই, এটা আমার এমবিশন এই গান টার মতো গাইতে পারছি না। হাহা কারন এটা পসিবল না, বিয়েতো করতেই হবে একটা সমত তবে আপাতত ভাবছিনা।

১৩।আপনার শ্রোতা বন্ধুদের উদ্দেশ্যে কিছু কি বলবেন??
চিত্রা : আমার শ্রোতাবন্ধুদের উদ্দেশ্য এটুকু বলবো আপনারা বাংলাকে ভালোবাসুন, বাংলা সংষ্কৃতিকে ভালোবাসুন। নতুন দের উৎসাহিত করুন বাংলা গানে। কারন আপনাদের মাঝে একজন শিল্পীর শিল্প বেঁচে থাকবে আজীবন। শিল্প ও সংস্কৃতি শ্রদ্ধা করুন অবমাননা নয়। ভালো শ্রোতা ও দর্শক হোন, ভালো গুলোকে গ্রহন করুন, খারাপ গুলোকে নয়।  

এম.এ. আলম শুভ : ধন্যবাদ আপনাকে চিত্রা।
চিত্রা : আপনাকেও ধন্যবাদ।

শেয়ার করুন