সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
মাইজদীতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যাবসায়ী নিহত

মাইজদীতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যাবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধি:

নোয়াখালী সদর উপজেলার মাইজদীতে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যাবসায়ী রুবেল ওরফে ভান্ডারী রুবেল (২৮) বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে।

বুধবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে রেল লাইন সংলগ্ন পশ্চিম মাহদুরি এলাকায় চাপা মিয়ার বাগানে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। নিহত ভান্ডারি রুবেল আইয়ুবপুর এলাকার বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার ভোরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি এলজি, একটি পাইপগান, ছয় রাউন্ড গুলি, দুইটি চাইনিজ কুড়াল, একটি ছোরা ও তিনটি রামদা উদ্ধার করেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, শহরের হরিনারায়ণ পুর পশ্চিম মহুদুরী গ্রামে রাত ১১ টার সময় গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ভান্ডারী রুবেল কে গ্রেফতার করা হয়। এই সময় সে পুলিশের হাতে কামড় দিয়ে পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। পরে পুলিশ তার তথ্য মতে উদ্বার অভিযান পরিচালনা করার সময় আবারও পালিয়ে গিয়ে পুলিশের উপর আক্রমণ করে। পুলিশ আত্নরক্ষার্থে গুলি করলে সে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনান্থলে মৃত্যূবরন করে।

এলাকাবাসী জানায়, ভান্ডারী রুবেল এর বিভিন্ন চাঁদাবাজী, ডাকাতি এবং বেশকয়েকটি হত্যার চেষ্টার মামলা রয়েছে। কিছুদিন আগে সে ডাকাতি ও মাদক মামলায় কক্সবাজার গ্রেফতার হয়েছিলো। সে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করে চলেছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। ফকির মিসকিন কেউ তার চাঁদাবাজির হাত থেকে রক্ষা পেতোনা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকার স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, সন্ত্রাসী রুবেল আমার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছিলো। না দিলে বাড়ি ঘর জালিয়ে দেওয়ার হুমকিও দেয় সে। তার বাড়িতে আদালত সৃষ্টি করে সে নিজেই বিচার করতো। তার মৃত্যূতে এলাকার মানুষের মাঝে শান্তি বিরাজ।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি কামরুজ্জামান সিকদার বলেন, ‘নিহত সন্ত্রাসী রুবেল ভান্ডারির বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতিসহ বিভিন্ন ঘটনায় ১৬টি মামলা রয়েছে।’ রুবেল ওরফে ভান্ডারী রুবেল (২৮) একজন চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী।

শেয়ার করুন