সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
করোনা পরীক্ষার কিট সংকটে চরম ভোগান্তি, নোয়াখালীতে ১ কীটে ২ নমুনা পরীক্ষা!

করোনা পরীক্ষার কিট সংকটে চরম ভোগান্তি, নোয়াখালীতে ১ কীটে ২ নমুনা পরীক্ষা!

 

মো. রাইহাতুল ইসলাম রাহাতআজকের নোয়াখালী:      দেশজুড়ে করোনা পরীক্ষার কিটের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছ এবং রোগীদের নমুনা সংগ্রহ কমানো হয়েছে। নোয়াখালীতে আবদুল মালেক মেডিকেল কলেজের মাইক্রো বায়োলজি বিভাগে গত ৪ দিন থেকে কিট সংকটে থাকায় করোনা পরীক্ষা বন্ধ ছিল। মঙ্গলবার (২৩ জুন) দুপুরে ১৪৪০ কিট বিশেষ ব্যবস্থায় আসলেও এটা দিয়ে সর্বোচ্ছ আরো তিন দিন চলবে। এছাড়া নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) কিট সংকটে ১টি কিটেই চলছে ২টি নমুনা পরীক্ষা

জানা যায়, নোয়াখালী আবদুল মালেক মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে জেলা শহর ও তথা নোয়াখালী পৌরসভা, বেগমগঞ্জ, চাটখিল, সোনাইমুড়ী ও সেনবাগ এবং ফেনী জেলার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। অন্য দিকে, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে জেলার উপজেলা সদরের একাংশ, কবিরহাট, কোম্পানীগঞ্জ, সুবর্ণরচর ও হাতিয়া এবং লক্ষ্মীপুর জেলার নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের মাইক্রো বায়োলজি বিভাগের চীফ কর্ডিনিয়েটর ও নোয়াখালী স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. ফজলে এলাহী খাঁন  আজকের নোয়াখালী’কে জানান,  “কিট সংকটের আশংকায় ১০ দিন পূর্বেই স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে চাহিদা পত্র পাঠিয়েছি। তিনবার লোক পাঠিয়েও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে কিট সরবরাহ করা হয়নি। যার ফলে এখানে (আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজে) করোনা পরীক্ষা বন্ধ ছিল”। তবে এর মধ্যে গত মঙ্গলবার (২৩ জুন) ১৪৪০ কিট বিশেষ ব্যবস্থায় আসলেও এটা দিয়ে সর্বোচ্ছ আরো তিন দিন চলবে বলে জানান ডা. ফজলে এলাহী খাঁন

 

আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক ও করোনা ল্যাবের মুখপাত্র ডা. দীপন মজুমদার কিট পাওয়ার কথা নিশ্চিত করে আজকের নোয়াখালী’কে জানান, মঙ্গলবার (২৩ জুন) দুপুরে তাদের হাতে প্রয়োজনীয় হলুদ কিট এসে পৌঁছেছে। ৬০টি বক্সে প্রায় এক হাজার ৪৪০টি কিট রয়েছে। কিট হাতে আসার পর থেকেই তারা পুনরায় করোনা নমুনা পরীক্ষার কাজ শুরু করে দিয়েছেন। তবে যে পরিমাণ কিট এসে পৌঁছেছে তাতে তিন থেকে চারদিন যাবে।

ডা. দীপন মজুমদার আরও জানান, গত কয়েকদিনে তাদের কাছে প্রায় ১২ থেকে ১৩শ নমুনা জমা হয়েছে। এগুলো করতে করতেই কিট শেষ হয়ে যাবে। প্রতিদিন তারা দুই শিফটে ২৮২টি পরীক্ষা করলে সপ্তাহে তাদের প্রয়োজন প্রায় আড়াই হাজার কিট। সেই অনুযায়ী যে কিট পেয়েছেন তা পর্যাপ্ত না। এ ল্যাবে নোয়াখালী ছাড়াও ফেনী, লক্ষীপুর ও চাঁদপুর জেলার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।

 

এদিকে, সরকারী হিসেব অনুযায়ী নোয়াখালীতে ৩৬ লক্ষ লোকের বিপরীতে এখন পর্যন্ত মাত্র সাড়ে ৯ হাজার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং সাড়ে ৮ হাজার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শতকরা হিসাব করলে নোয়াখালীতে প্রতি ৫’শ জনের মধ্যে ১ জনও করোনা পরীক্ষার আওতায় আসেনি। কিট সংকট দেখা দেয়ায় সরকারি নির্দেশনায় নমুনা সংগ্রহ আপাতত কমিয়ে আনা হয়েছে যার ফলে করেনার উপসর্গ নিয়ে মানুষ পরীক্ষা করা ও চিকিৎসা সেব নিতে পারছেনা।

 

নোয়াখালীর যে কোনো আপডেট খবর জানতে আমাদের ফেইজবুক পেইজ আজকের নোয়াখালী’তে চোখ রাখুন

শেয়ার করুন