সাংবাদিক নিয়োগঃ
আজকের নোয়াখালী শিক্ষানবীশ সাংবাদিক নিয়োগ - আগ্রহীরা সিভি পাঠিয়ে দিন আমাদের মেইলঃ ajkernoakhali2019@gmail.com এ
অসহায় মানুষের পাশে নোয়াখালীর কৃতি সন্তান মানবিক ও দেশপ্রেমিক ‘র‌্যাব সদস্য- আরিফ মুন্সী’

অসহায় মানুষের পাশে নোয়াখালীর কৃতি সন্তান মানবিক ও দেশপ্রেমিক ‘র‌্যাব সদস্য- আরিফ মুন্সী’

আজকের নোয়াখালী’র  বিশেষ প্রতিবেদন:

.

নোয়াখালীর সদর উপজেলার বাঁধের হাট এলাকার কৃতি সন্তান মানবিক ও দেশপ্রেমিক র‌্যাব সদস্য আরিফ মুন্সী সফলতার সাথে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় র‌্যাব-৭ এ কর্মরত আছেন। সেখানে আশেপাশের অসহায় মানুষের মাঝে ‍র‍্যাব কর্তৃক ত্রাণসামগ্রী ও খাদ্য সহায়তা বিতরনের পরও নিজ তহবিল থেকে অসহায় কিছু পরিবারকে সহায়তা করেছেন।

.

তিনি নিজ সন্তানের আকিকা অনুষ্ঠান করার জন্য একটু একটু করে জমানো এক লক্ষ টাকা নিজ এলাকায়  মসজিদ নির্মাণে দান করেছেন। তখন আকিকার বড় অনুষ্ঠান না করে, সংক্ষিপ্ত ভাবে আকিকা দেন। তাঁর নিজ এলাকায় বাঁধের হাট গোরাপুর জামে মসজিদ এর নির্মান কাজের শুরুতে নিজের ১মাসের বেতনের টাকা দান করেছেন। পরে যখন তিনি ছুটি নিয়ে বাড়িতে যান ছেলের আকিকা অনুষ্ঠান করবেন, সেই মুহূর্তে জানতে পারেন মসজিদের ভবনের ছাদের কাজে টাকা লাগবে, তখন সন্তানের আকিকা অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্ধকৃত পুরো ১ লক্ষ টাকা মসজিদে দান করে দেন।

.

মানবিক ও দেশপ্রেমিক ‘র‌্যাব সদস্য- আরিফ মুন্সী’

.
নোয়াখালীর সদর উপজেলার বাঁধের হাট এলাকার বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত চৌধুরী মিয়ার সন্তান র‌্যাব-৭ এর সদস্য আরিফ মুন্সী। সাত ভাই বোনের মধ্যে ৬ষ্ঠ আরিফ মুন্সী। বড় তিন ভাই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সৌদি প্রবাসী এবং ছোট ভাই পুলিশ সদস্য। ২০০৬ সালে তিনি বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে (ইঞ্জিনিয়ারিং কোরে) নৌসেনা হিসেবে যোগদান করেন। নৌবাহিনীতে দক্ষতার পরিচয় দেওয়াতে, পরবর্তীতে বদলী হয়ে আসেন র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (RAB) এ। সর্বপ্রথম তাঁকে বদলী করা হয় র‍্যাব সদর দপ্তরে। পরবর্তীকালে তাকে র‍্যাব-৭ এর চট্রগ্রাম অঞ্চলে দেওয়া হয়। দায়িত্ব থাকাকালীন সময়ে তিনি বঙ্গোবসাগরের সেন্টমার্টিনের খুব গভীরে মিয়ানমার সীমান্তের কাছাকাছি এক দুঃসাহসিক অভিযানকালে সাগরে ঝাঁপিয়ে পড়ে ১০ লক্ষ পিস ইয়াবাসহ পাচারকারীদের গ্রেফতার করেন ততকালীন র‍্যাব -৭ অধিনায়ক এবং তরুণ এই র‍্যাব অফিসার। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক অবৈধ বাজার মূল্য প্রায় ৩৫ কোটি টাকা। তার এই দুঃসাহসিক অভিযানে তৎসময়ের র‍্যাব-৭ এর অধিনায়ক কর্তৃক তিনি বিশেষভাবে পুরষ্কৃত হন।
.
এরপর আরিফ মুন্সী চট্রগ্রাম অঞ্চলে র‍্যাব-৭ এর অনেক গুরুত্বপূর্ণ অপারেশনের দায়িত্ব প্রাপ্ত হন। তখন র‍্যাব -৭ অধিনায়ক মহোদয়ের সাথে, গুরুত্বপূর্ণ অপারেশনে যোগদান করেন এই তরুন অফিসার। তার উল্লেখযোগ্য সফল অপারেশন গুলো হলো-মীরসরাই জঙ্গী অপারেশন, মহেশখালী অস্ত্র কারখানা ধ্বংস, মহেশখালীতে বনদস্যু ও জলদস্যু আত্মসমর্পণ, বঙ্গোবসাগরে ইয়াবা চালান ও ইয়াবা পাচার কারী গ্রেফতার, দূর্ধর্ষ পাহাড়ি এলাকায় অস্ত্র অপারেশন ও অপারেশন সুন্দরবন। সফল এই অপারেশনের কারণে তিনি দূঃসাহসিক র‍্যাব সদস্য হিসেবে স্বীকৃতি পান। তার ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ সম্প্রতি তিনি তার জীবনের বড় অর্জন “সুন্দরবন দস্যুমুক্ত পদক” প্রাপ্তহন।
 

 

জনাব  আরিফ মুন্সী সফলতার সাথে এতোসব দায়িত্ব পালন করেও ভুলেননি নিজ জেলা নোয়াখালীর অসহায় মানুষের কথা। গরীব-দুঃখীদের অর্থ সহায়তা, গরীব মেয়ের বিয়ে দেয়া, অসুস্থ, অসহায়কে সাহায্য করাসহ, স্কুল মাদ্রাসা এতিমখানা ও মসজিদ নির্মানে সহযোগিতা করছেন দেশপ্রেমিক এই র‍্যাব সদস্য ও তার পরিবার। সম্প্রতি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন নোয়াখালীর এই কৃতি সন্তান। এই সময়টাতে নিজ কর্মস্থলের আশেপাশের মানুষের পাশাপাশি এলাকার মানুষের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

 

 

এছাড়া নোয়াখালী- ০৪ আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরীর করা “”একরাম চৌধুরী ফাউন্ডেশন”” এ ঊনার পরিবার অর্থ সহায়তা করেছেন। যখন যে মাধ্যমে শুনেছেন অসহায় মানুষের আর্তনাদ, সেখানেই ব্যক্তিগত উদ্যেগে সহযোগিতা নিয়ে দাঁড়িয়েছেন।

.

 

.

নোয়াখালীর গর্ব ‘মানবিক ও দেশপ্রেমিক’ এই র‍্যাব সদস্যের কাছে জানতে চাইলে  আজকের নোয়াখালী’কে তিনি বলেন, আমার পরিবার জেলার বাঁধের হাট এলাকার প্রাচীন ও সনামধন্য ব্যাবসায়ী পরিবার। দেশে নিজ এলাকায় ও বিদেশে ভাইদের ব্যবসা রয়েছে। নিজের পরিবার থেকেই শিখেছি মানুষদের সেবা করা। তাই নিজের সাধ্যমতো চেষ্টা করি ‘দেশ ও মানুষের’ জন্য কাজ করতে। প্রিয় ‘দেশবাসী ও প্রিয় নোয়াখালী বাসী’র কাছে দোয়া আর ভালোবাসা’ প্রত্যাশা করেন তিনি।

.
.

আমাদের ফেইজবুক পেইজ আজকের নোয়াখালী’তে লাইক দিয়ে সাথেই থাকুন….

.

.

আরো পড়ুন….

.
.

শেয়ার করুন